সাতকানিয়ায় সাংবাদিকের উপর হামলা: ব্যাবস্থা নেওয়ার দাবী জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতারা

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

জনপ্রিয় স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল বিজয় টিভির চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা প্রতিনিধি, টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক, চন্দনাইশ ও লোহাগাড়া প্র‍েসক্লাবের সদস‍্য মোহাম্মদ নাসিরের উপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা।

সাতকানিয়া নলুয়া ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের চলাচলের রাস্তার উপর দিয়ে জামাত শিবিরের ক‍্যাডার মুফিজুর রহমান বাবু ও তার ছোট ভাই মোহাম্মদ মুনছুর কে রাস্তা উপর টয়লেট নির্মাণ না করতে সাংবাদিক মোহাম্মদ নাসির বাধা
দিলে তাকে দুই ভাই মিলে গালাগাল শুরু করে।তিনি সাতকানিয়া থানায় ফোন দিলে পুলিশ এসে নির্মাণ কাজ বন্ধ করে দেয় এবং বিষয়টি স্হানীয় ভাবে আপোষ মিমাংসা করে নেওয়ার পরামর্শ প্রদান করে পুলিশ চলে যায়। পুলিশ চলে যাওযার পরে সাংবাদিক মোহাম্মদ নাসির তার বাড়ি থেকেই সি এন জি যোগে কাজে যাওয়ার সময় নলুয়া চেয়ারম্যান ঘাটা এলাকায় পৌছামাত্র উৎপেতে থাকা সন্ত্রাসী
মুফিজুর রহমান বাবু ও তার ভাই মুনছুর তাহাদের দোকান হইতে বাহির হইয়া সি এন জি গতিরোধ করে গাড়ি থেকেই নামিয়ে এলোপাথাড়ি ভাবে মারধর শুরু করে এবং তাহার পেন্টের পকেট থেকেই মানিব‍্যাগ ছিনিয়ে নেই। মানিব্যাগের ভিতরে থাকা নগদ ১৩৫০ টাকা বিভিন্ন প্রয়োজনীয় কাগজ তাহার বিজয় টিভির পরিচয়পত্র ও একটি স‍্যামসাং জে ৮ মোবাইল সেট নিয়ে যায়। এই ব‍্যাপারে মোহাম্মদ নাসির বাদি হয়ে সাতকানিয়া থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত অফিসার ইনচার্জ আনোয়ার হোসেন বলেন আমি একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত করে অতিদ্রুত এর ব‍্যবস্তা গ্রহণ করব।

সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু জানান, সাংবাদিক মোহাম্মদ নাসির এর উপর হামলার ঘটনাটি শুনেছি, আমি ওসি সাহেবকে এবিষয়ে দ্রুত ব্যাবস্থা নিতে বলেছি।

এদিকে সাংবাদিক মোহাম্মদ নাসির এর উপর হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন লোহাগাড়া প্রেসক্লাব সভাপতি আবদুল আউয়াল জনি, সাধারণ সম্পাদক তাজউদ্দীন, চন্দনাইশ প্রেসক্লাব সভাপতি এ্যাডভোকেট দেলোয়ার হোসেন, সাধারণ মোহাম্মদ এরশাদ, টিভি জার্নালিস্ট এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলার সভাপতি হারুন অর রশিদ, সাতকানিয়ার সাংবাদিক নেতা দিদারুল আলম, সুকান্ত বিকাশ ধর, জাহেদ হোসাইন সহ আরো অনেকে, হামলাকারীদের দ্রুত আইনের আওতায় আনার জোর দাবী জানিয়েছেন সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ।

মতামত