বেপরোয়া গতির ডাম্পারের সাথে সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে প্রাণ গেল পিতাপুত্রের

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বেপরোয়া গতির ডাম্পারের সাথে সিএনজি অটোরিকশার সংঘর্ষে বাবা-ছেলের মৃত্যু হয়েছে। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন আরো ৩ যাত্রী। আহতদের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মঙ্গলবার (২৩ নভেম্বর) বিকেল ৫টায় সাতকানিয়ার এওচিয়া ছনখোলা এলাকায় এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন।

নিহতরা হলেন- ছোটন জলদাশ (৩৫) ও তার ছেলে সুব্র জল দাশ (৮)। বান্দরবানের কালাঘাটা তাঁরা এলাকার বাসিন্দা।

আহতরা হলেন- মোহাম্মদ পারভেজ (৩৭), মর্তুজ আলী (৩২), সোনালী জলদাশ (৩০)। আহত সোনালী জলদাশ নিহত ছোটন জলদাশের স্ত্রী। তার অবস্থা আশঙ্কা জনক হওয়ায় তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বান্দরবানের কালাঘাটা থেকে বাঁশখালীর কালীপূরে শশুরবাড়িতে গত কয়েকদিন আগে বেড়াতে আসেন ছোটন জলদাশ। মঙ্গলবার বিকালে সিএনজি অটোরিকশা যোগে বাশখালী হতে সাতকানিয়ার কেরানীহাট আসার পথে এওচিয়ার ছনখোলা এলাকায় পৌঁছলে বেপরোয়া গতির একটি ডাম্পার এসে পাশ থেকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে গাড়িতে থাকা যাত্রীরা আহত হলে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বাঁশখালী গুনাগরিতে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবা ছেলেকে মৃত ঘোষণা করেন।

সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, সড়ক দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ছনখোলার ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। আহতদের মধ্যে বাবা ছেলের মৃত্যু হয়েছে। এব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

 

মতামত