সেনাবাহিনী সঙ্গে সন্ত্রাসবাহিনীর গুলা গুলি, নিহত চার, নানা সরঞ্জামাদি উদ্ধার

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেক্সঃ

বান্দরবানের রুমায় সেনাবাহিনী ও সন্ত্রাস বাহিনী জেএসএসের  গোলাগুলিতে এক সেনা কর্মকর্তাসহ জেএসএস (সন্তু) দলের তিন সদস্য নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত আনুমানিক পৌনে ১১টার সময় রুমার বথি পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। আজ বৃহস্পতিবার আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তরের (আইএসপিআর) পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।

এসময়একটি এসএমজি, তিনটি দেশীয় অস্ত্র, ২৮০ রাউন্ড গুলি, সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত পোশাকসহ নানা সরঞ্জামাদি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, বুধবার সন্ধ্যায় ২৮ বীরের একটি বিশেষ টহল দল রাইক্ষিয়াংলেক আর্মি ক্যাম্প থেকে পাখই পাড়ায় গেলে সেখানে জানতে পারে বথিপাড়া এলাকার আস্তানায় সন্তু বাহিনীর জেএসএস দলের সদস্যরা অবস্থান করছে। এমন খবর পেয়ে সেনা সদস্যরা সেখানে অভিযানে গেলে সন্ত্রাসীরা সেনা টহল দলকে লক্ষ্যে করে অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় টহল দলের নেতৃত্বে থাকা সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমানের মাথায় গুলি লাগে এবং সেনা সদস্য ফিরোজের পায়ে গুলি লাগে। এতে গুলিবিদ্ধ হয়ে ওয়ারেন্ট অফিসার হাবিবুর রহমান মারা যায়।পরে সেনা সদস্যরা পাল্টা গুলি ছুড়লে জেএসএস এর তিন সন্ত্রাসী মারা যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয়েছে একটি এসএমজি, তিনটি দেশীয় অস্ত্র, ২৮০ রাউন্ড গুলি, সন্ত্রাসীদের ব্যবহৃত পোশাকসহ নানা সরঞ্জাম।

এ ঘটনায় আহত এক সেনা সদস্যকে চট্টগ্রাম সিএমএইচে পাঠানো হয়েছে। নিহত সেনা কর্মকর্তার নাম মো. হাবিবুর রহমান। তিনি রুমা জোন (২৮) বীর রাইক্ষিয়াংলেক আর্মি ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়ারেন্ট অফিসার। আর আহত সেনার নাম মো. ফিরোজ। তিনি একই ক্যাম্পের সেনা সদস্য। তবে জেএসএস (সন্তু) দলের নিহত সদস্যদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি।

 

মতামত