কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজ জেলা পর্যায়ে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ প্রতিযোগিতায় প্রথম

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্কঃ

জেলা পর্যায়ে ৪৩ তম জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সপ্তাহ প্রতিযোগিতায় বিজ্ঞান প্রজেক্ট ডিসপ্লেতে (জুনিয়র গ্রুপ) ও বিজ্ঞান অলিম্পিয়াডে (সিনিয়র গ্রুপ) প্রথম হয়েছে বান্দরবানের লামা কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজের শিক্ষার্থীরা।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি জাদুঘরের পৃষ্ঠপোষকতায় বান্দরবান কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজে বান্দরবানের উপজেলা পর্যায়ের বিজয়ীদের নিয়ে বৃহস্পতিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় এই প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠান।

অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন বুয়েটের প্রাক্তন অধ্যাপক, বাংলাদেশ একাডেমি অব সায়েন্সেসের ফেলো ও ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিস্টিংগুইশড অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ কায়কোবাদ। আগত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে তিনি তার বক্তব্যে বলেন, ‘বিজ্ঞানের একটি সমস্যা সমাধান করা আমাদের মূল উদ্দেশ্য নয়। যেমন একটি গাণিতিক সমস্যার সমাধান মূল কথা নয়। মূল কথা হলো একটি সমস্যা নিয়ে কতক্ষণ চিন্তা করতে পারলে। এই ভাবনা শক্তির ওপর নির্ভর করবে তোমাদের ও আমাদের উত্থান। কারণ আমাদের আছে অসীম সম্ভাবনাময় একটি মস্তিষ্ক। সুঠাম শরীরের জন্যে যেমন প্রয়োজন ব্যায়াম করার, তেমনি বুদ্ধির বিকাশের জন্যে প্রয়োজন মস্তিষ্কের নিউরনের ব্যায়াম। অর্থাৎ চিন্তা করতে শেখা।

অনুষ্ঠানটি সভাপতিত্ব করেন বান্দরবান পার্বত্য জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি। তিনি বলেন, ‘আজকের শিক্ষার্থীরাই আগামীর ভবিষ্যৎ। লেখাপড়া শুধু মুখস্থ করে পাশ করলে হবে না। চিন্তা করতে হবে। গভীরভাবে অনুধাবন করতে হবে। তাহলেই আমরা আমাদের লেখাপড়ার বিষয়গুলো বাস্তবিকভাবে প্রয়োগ করতে পারব। এ লক্ষ্যেই আমরা প্রতিবছর কায়কোবাদ স্যারের মতো গুণী ব্যক্তিদের সান্নিধ্য আমাদের ছাত্রদের দিতে চাই।

উল্লেখ্য ৯ ও ১০ জানুয়ারি বান্দরবান পার্বত্য জেলার উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত লামা উপজেলার লামা টাউন হলে বাছাই পর্বে এই প্রতিযোগিতায় উপজেলার অন্যান্য স্কুলের সাথে অংশ নেয় কোয়ান্টাম কসমো স্কুল ও কলেজ এবং জেলা পর্যায়ে প্রতিযোগিতার জন্যে নির্বাচিত হয়।

মতামত