কক্সবাজার শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুর্নবাসন কেন্দ্রে নানা আয়োজনে মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

কক্সবাজার শহরের দক্ষিণ রুমালিয়ার ছড়াস্থ শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুর্নবাসন কেন্দ্রের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় বর্ণাঢ্য নানা আয়োজনে ২৬র্মাচ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস’২০২২ উদযাপন করা হয়েছে। মহান স্বাধীনতা দিবসের নানা র্কমসূচি পালনের ধারাবাহিকতায় (২৬ মার্চ ) রোজ শনিবার সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং শহীদদের প্রতিশ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের মাধ্যমে দিবসের কর্মসূচি শুরু হয়।

সকালে কক্সবাজার জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে জেলায় র্শীষ স্থান সহ গৌরবময় নানা স্থান র্অজন করেছে কক্সবাজার শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুর্নবাসন কেন্দ্রের নিবাসী শিশুরা।

কক্সবাজার জেলা প্রশাসন এর আয়োজনে শরীরর্চচা প্রদর্শন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্যেদিয়ে শেখ রাসেল শিশু প্রশিক্ষণ ও পুর্নবাসন কেন্দ্র গৌরবময় প্রথম স্থান র্অজন করেছে। এছাড়াও জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সরকারি বিশেষ দল হিসেবে কুচকাওয়াজ এ মনোমুগ্ধকর পরিবেশনায় অংশগ্রহণের জন্য বিশেষ পুরস্কার প্রদান করা হয়।

একই দিন জেলা প্রশাসন এর উদ্যোগে আয়োজিত বালক শিশুদের ২০০ মিটার দৌঁড় প্রতিযোগিতায় যথাক্রমে ১ম, ২য় এবং ৩য় স্থান ও বালিকা শিশুদের ১০০ মিটার দৌঁড় প্রতিযোগিতায় ৩য় স্থান অর্জন করে অত্র কেন্দ্রের নিবাসী শিশুরা। এছাড়াও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও রচনা প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করে জেলায় যথাক্রমে দ্বিতীয় এবং তৃতীয় স্থান ও দখল করেছে অত্র কেন্দ্রের নিবাসী দুজন বালিকা শিশু।

বিকেলে কেন্দ্রের কর্মকর্তা/কর্মচারি ও নিবাসী শিশুদের অংশগ্রহণে সবুজবাগ জামে মসজিদের খতিব মাওলানা মোঃ ইকবাল হোসাইন এর পরিচালনায় মিলাদ ও
দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। কেন্দ্র মিলনায়তনে নিবাসী শিশুদের অংশগ্রহণে দেশাত্নবোধক গান প্রতিযোগিতা ও দেশাত্নবোধক গানে নৃত্য প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়।

উপপ্রকল্প পরিচালক জেসমিন আকতার এর সার্বিক তত্ত্বাবধানে কেন্দ্রের কর্মকর্তা-র্কমচারীবৃন্দ এবং নিবাসী শিশুদের অংশগ্রহণে আলোচনা সভার আয়োজন করা
হয়। লাইফস্কিল ট্রেইনার ক্যনু মং মারমা এর সঞ্চালনায় পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত এর মধ্যদিয়ে শুরু হওয়া আলোচনা সভায় বক্তারা ২৬শে মার্চ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস এর তাৎপর্য ও পটভূমি তুলে ধরেন। এরপরেই শিশুদের পরিবেশিত মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপস্থিত সকলেই বিমুগ্ধচিত্তে উপভোগ করেন।

সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শেষে প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে ভবন আলোকসজ্জাসহ নিবাসী শিশুদের মাঝে বিশেষ উন্নতমানের খাবার পরিবেশন করা হয়।

মতামত