কোয়ান্টাম কসমো স্কুলে বিশ্ব মেডিটেশন দিবসের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

 

২১ মে বিশ্ব মেডিটেশন দিবস উপলক্ষে বান্দরবান লামার কোয়ান্টাম কসমো স্কুলের শিক্ষার্থীদের নিয়ে আয়োজিত হয় চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। এতে অংশ নেয় ১৮৬ জন ছাত্র ও ৯৫ জন ছাত্রী। এবছর বিশ্ব মেডিটেশন দিবসের প্রতিপাদ্য ‘ভালো মানুষ ভালো দেশ স্বর্গভূমি বাংলাদেশ’ বিষয়ের ওপর তারা ছবি আঁকে। স্কেচ, রঙ পেন্সিল, জল রঙ ও কল্পনার মিশেলের এই ক্ষুদে চিত্র শিল্পীরা ফুটিয়ে তোলে তাদের ক্যানভাস।

‘ভালো মানুষ ভালো দেশ স্বর্গভূমি বাংলাদেশ’ বলতে কী বোঝা যায় জিজ্ঞেস করাতে অষ্টম শ্রেণির এক শিক্ষার্থী বলে, ‘দেশের বেশিরভাগ মানুষ যখন ভালো হয়ে যাবে তখন স্বর্গভূমি হয়ে যাবে আমাদের দেশ।’ চতুর্থ শ্রেণির একজন বলে, ‘আমাদের দেশে যখন অনেক সুন্দর সুন্দর বাড়ি হবে তখন।’ একেক জনের অনুভূতি একেক রকম। কেউ বলে সুউচ্চ দালানের কথা, কেউ বলে নদীর নাব্যতা ফিরিয়ে আনার কথা, কেউ বা বলে গাছপালা লাগাতে হবে আমাদের তাহলেই স্বর্গভূমিতে রূপান্তর হবে বাংলাদেশ। আবার কেউ বলেছে, আমাদের শুদ্ধাচারী হতে হবে, শিখতে হবে সত্য কথা বলা। অসাম্প্রদায়িকতার গুরুত্বকেও তুলে ধরেছে একজন শিক্ষার্থী। তবে ধ্যান চর্চা করতে হবে একথা প্রত্যেকে বলেছে এবং তাদের ছবিতেও ফুটিয়ে তুলেছে অনেকে।

এমন ইতিবাচক মনোভাব গড়ে ওঠার কারণ জানতে চাইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ সালেহ আহমেদ বলেন, ‘আমাদের শিক্ষালয়টি শুধু লেখাপড়ার জন্য নয়, এটি একটি ধ্যান ও জ্ঞানের উদারনৈতিক পাঠশালা। তাই ছবি আঁকার মধ্যে এই অনুভূতিগুলোই প্রকাশ পাচ্ছিল প্রায় প্রতিটি শিশু-কিশোরের মাঝে।’

উল্লেখ্য ২০২১ সাল থেকে বাংলাদেশে এই দিবস উদযাপন করছে দেশে মেডিটেশন চর্চার পথিকৃৎ কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন। গত তিন দশক ধরে কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন সাধারণ মানুষের কাছে মেডিটেশনের এই কার্যকারিতা ও প্রয়োজনীয়তা তুলে ধরতে অবিরাম কাজ করে যাচ্ছে। প্রাচ্য এবং পাশ্চাত্যের মেডিটেশন পদ্ধতির সমন্বয়ে গড়ে উঠেছে কোয়ান্টামের ধ্যান পদ্ধতি। কোয়ান্টাম মেথড নামে পরিচিত এই মেডিটেশন পদ্ধতির প্রবর্তক গুরুজী শহীদ আল বোখারী মহাজাতক। যিনি এখন পর্যন্ত প্রায় ৪৮১টি ব্যাচে লক্ষ মানুষকে সরাসরি মেডিটেশনের কৌশল শিক্ষা দিয়েছেন।

মতামত