বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি মোশাররফ গ্রেফতার

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

পুরান ঢাকার বিশ্বজিৎ দাস হত্যা মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক পলাতক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাব।

সোমবার এক বিজ্ঞপ্তিতে র‍্যাব-২ জানায়, রোববার রাতে রাজধানীর গুলশান এলাকা থেকে মোশাররফ হোসেন নামের ৩৪ বছর বয়সী ওই যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়।

ঢাকার সূত্রাপুরের বাহাদুর শাহ পার্কের সামনে দর্জি বিশ্বজিৎকে কুপিয়ে হত্যায় জড়িত থাকার দায়ে যাবজ্জীবন সাজার রায় মাথায় নিয়ে গত দশ বছর ধরে পলাতক জীবন কাটাচ্ছিলেন মোশাররফ।

২০১২ সালের ৯ ডিসেম্বর বিএনপি নেতৃত্বাধীন জোটের অবরোধের মধ্যে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের একটি মিছিল থেকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে বিশ্বজিৎকে হত্যা করা হয়।

ওই ঘটনায় অজ্ঞাতনামা ২৫ জনকে আসামি করে সূত্রাপুর থানায় মামলা করেন এসআই জালাল আহমেদ।

হত্যাকাণ্ডের তিন মাসের মধ্যে ২০১৩ সালের ৫ মার্চ ২১ জনকে আসামি করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের পরিদর্শক তাজুল ইসলাম।

চাঞ্চল্যকর এ হত্যা মামলায় রায় আসে ২০১৩ সালের ডিসেম্বরে। ২১ আসামির মধ্যে আটজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং ১৩ জনকে যাবজ্জীবন সাজা দেয় দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল।

পরে মামলাটি হাই কোর্টে গেলে ২০১৭ সালের ৬ আগস্ট আটজনের মধ্যে দুই আসামির মৃত্যুদণ্ড বহাল রাখে উচ্চ আদালত। বাকি ছয়জনের মধ্যে চারজনকে যাবজ্জীবন সাজা দেওয়া হয়; দুজন খালাস পান।

এছাড়া বিচারিক আদালতে যাবজ্জীবন সাজা পাওয়া আপিলকারী দুইজনকেও খালাস দেওয়া হয় হাই কোর্টের রায়ে।

বিশ্বজিৎ হত্যার খবর ও ছবি আলোড়ন তোলে সে সময়ে। আসামিরা সবাই ক্ষমতাসীন দলের ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠন ছাত্রলীগের জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতা-কর্মী হওয়ায় সরকারকে সে সময় তুমুল সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

মতামত