ই-পেপার | মঙ্গলবার , ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
×

এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে অপরাধ করলেও কোন ছাড় নেই এমপি এম এ মোতালেব

কারো অনৈতিক সুপারিশ গ্রহণ না করতে প্রশাসনকে নির্দেশ

সিটিজি ভয়েস টিভি ডেস্ক:

কারো অনৈতিক সুপারিশ গ্রহণ না করতে প্রশাসনকে নির্দেশ দেওয়ার পাশাপাশি এমপির নাম ভাঙ্গিয়ে কেউ কোন ধরনের অপরাধ করলেও কোন ছাড় না দেওয়ার জন্য প্রশাসনকে নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রাম-১৫ (সাতকানিয়া-লোহাগাড়া) আসনের নব-নির্বাচিত সংসদ সদস্য ও সাতকানিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এম এ মোতালেব।

সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়ে শপথ গ্রহণের পর সোমবার (১৫ জানুয়ারি) লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত উপজেলা আইন শৃঙ্খলা বিষয়ক মাসিক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি আরও বলেন, অবৈধভাবে বালি উত্তোলন ও কৃষি জমির টপসয়েল কাটার কারণে পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হচ্ছে এবং কৃষি জমি দিন দিন হ্রাস পাচ্ছে। কোন ভাবেই ইজারা ছাড়া বালু উত্তোলন করা যাবেনা। এ বিষয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর স্পষ্ট নির্দেশনা অনুযায়ী প্রশাসনকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। নিজের লোক হলেও অবৈধভাবে বালু উত্তোলন এবং মাটি খেকোদের কোন ছাড় দেয়া হবে না। সবাই আমার কাছে সমান, আপনজন। লোহাগাড়ায় কোন কোন জায়গায় গেইট বসিয়ে অবৈধ বালু উত্তোলনকারীরা চাঁদা নিচ্ছেন। এগুলো বন্ধ করতে হবে। কেউ যদি ইজারা ছাড়া বালু উত্তোলন করে তাহলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে হবে। উপজেলার পুটিবিলায় অবৈধভাবে স্থাপিত বালুর চাঁদার গেইট বন্ধ করতে হবে।

এমপি মোতালেব বলেন, বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদাঙ্ক অনুসরণ করে উন্নয়ন করার মাধ্যমে সামনের পথ পাড়ি দিয়ে এগিয়ে যেতে চাই। আমি সংসদ সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পূর্বে সাতকানিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান থাকাকালে উন্নয়ন বরাদ্দে কোন বৈষম্য করিনি। রেসিও অনুযায়ী আমি প্রতিটি ইউপি চেয়ারম্যানকে বরাদ্দ দিয়েছি। সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েও তার ব্যাত্যয় ঘটবে না। ইউপি চেয়ারম্যান যে দলেরই হোক উন্নয়ন বরাদ্দে কোন বৈষম্য হবে না।

তিনি আরও বলেন, কতিপয় খারাপ লোক নির্বাচনের পর এলাকায় আইন শৃঙ্খলার অবনতি ঘটানো হচ্ছে বলে বিভিন্ন মাধ্যমে অপপ্রচার চালাচ্ছেন। আমি এবং আমার পক্ষে নির্বাচন পরিচালনাকারী আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের পরিকল্পিতভাবে বিতর্কিত করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এজন্য আমি গত রবিবার সংবাদ সম্মেলন করে এ বিষয়ে আমার আনুষ্টানিক প্রতিক্রিয়া এবং সাতকানিয়া-লোহাগাড়ার প্রকৃত বিষয় সমুহ সাংবাদিকদের মাধ্যমে দেশবাসীর কাছে তুলে ধরেছি।

উপজেলা সদর বটতলী মোটর ষ্টেশনে যানজটের কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, বটতলী মোটর ষ্টেশন যানজট মারাত্বক আকার ধারণ করেছে। বটতলী শহর উন্নয়ন কমিটিকে নতুন করে সাজিয়ে কাজে লাগাতে হবে। স্টেশনের ফুটপাত দখলমুক্ত করতে হবে। বটতলী মোটর ষ্টেশনকে যানজটমুক্ত করতে উপজেলা প্রশাসন, থানা পুলিশ প্রশাসন ও শহর উন্নয়ন কমিটিকে যৌথভাবে পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার আহবান জানান।

উপজেলার স্বাস্থ্য সেবার বিষয়ে নব-নির্বাচিত সংসদ সদস্য বলেন, কমিউনিটি ক্লিনিকের শতভাগ সুফল যেন প্রান্তিক জনগোষ্ঠী পায় সেই ব্যবস্থা নিতে হবে। প্রতি দুই মাস অন্তর অন্তর সভা করে কমিউনিটি ক্লিনিককে জবাবদিহির আওতায় আনারও আহবান জানান তিনি।

লোহাগাড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মুহাম্মদ ইনামুল হাছানের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) নাজমুন লায়েল, লোহাগাড়া থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রাশেদুল ইসলাম, উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান এম ইব্রাহিম কবির, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেসমিন আক্তার, লোহাগাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ মোহাম্মদ হানিফ, লোহাগাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি খোরশেদ আলম চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন হিরু, উপজেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ খালেকুজ্জামান, উপজেলা কৃষি অফিসার কাজি শফিউল ইসলাম, লোহাগাড়া প্রেস ক্লাব সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলাম, লোহাগাড়া মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড এর ডেপুটি কমান্ডার আবদুল হামিদ বেঙ্গল, লোহাগাড়া ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি শাহাব উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা পিআইও মাহবুব আলম শাওন, উপজেলা প্রকৌশলী ইফরাত বিন মুনীর, পদুয়া বনরেঞ্জ কর্মকর্তা মঞ্জুর মোর্শেদ, বড়হাতিয়া ইউপি চেয়ারম্যান বিজয় কুমার বড়ুয়া, লোহাগাড়া সদর ইউপি চেয়ারম্যান নুরুচ্ছাফা চৌধুরী, পদুয়া ইউপি চেয়ারম্যান হারুনর রশিদ, চুনতি ইউপি চেয়ারম্যান জয়নুল আবেদিন, আধুনগর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ নাজিম উদ্দিন, পুটিবিলা ইউপি চেয়ারম্যান জাহাঙ্গীর হোসেন মানিক, আমিরাবাদ ইউপি চেয়ারম্যান এসএম ইউনুচ, কলাউজান ইউপি চেয়ারম্যান এম. এ ওয়াহেদ, চরম্বা ইউপি চেয়ারম্যান হেলাল উদ্দিন্ প্রমুখ। এছাড়াও সভায় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন দপ্তরের প্রধান এবং সংশ্লিষ্টরা বক্তব্য রাখেন।

এই বিভাগের সর্বাধিক পঠিত রিপোর্ট